Home বাংলাদেশ বন্যায় ২৫ জেলায়,২৫ জনের মৃত্যু

বন্যায় ২৫ জেলায়,২৫ জনের মৃত্যু

29
0

 নিজস্ব সংবাদদাতা: চলমান বন্যা দেশের ২৫টি জেলায় বিস্তৃত হয়েছে বলে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী মো. এনামুর রহমান। তিনি বলেন, বন্যায় এ পর্যন্ত ২৫ জন মারা গেছেন। এরমধ্যে ২১ জন প্রাপ্তবয়স্ক ও চারজন শিশু।

মঙ্গলবার সচিবালয়ে উদ্ধারকারী নৌযান নির্মাণের জন্য দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের সঙ্গে নারায়ণগঞ্জ ডকইয়ার্ডের চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রতিমন্ত্রী এ কথা জানান।

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় তিন কোটি ২১ লাখ টাকা নগদ ও ৯ হাজার টন চাল দেয়া হয়েছে বলেও জানান এনামুর রহমান।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর নারায়ণগঞ্জ ডকইয়ার্ড অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস লিমিটেড দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরকে ৬০টি মাল্টিপারপাস অ্যাক্সিসিবল রেসকিউ বোট সরবরাহ করবে। প্রতিবছর ২০টি করে তিন বছরে ৬০টি বোট সরবরাহ করা হবে। প্রতিটি বোট নির্মাণে খরচ হবে ৪৫ লাখ টাকা।

চুক্তিপত্রে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদফতরের পক্ষে মহাপরিচালক আতিকুল হক এবং নারায়ণগঞ্জ ডকইয়ার্ডের পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক কমডোর আকতার হোসেন স্বাক্ষর করেন।

ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, রেসকিউ বোটগুলো বন্যাকবলিত এলাকার মানুষ, গৃহপালিত পশুপাখি ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী আশ্রয়কেন্দ্রে স্থানান্তরের কাজে ব্যবহার করা হবে। নারী, শিশু এবং প্রতিবন্ধীদের রেসকিউ বোটের মাধ্যমে নিরাপদে উদ্ধার ও স্থানান্তরের বিশেষ ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

তিনি জানান, প্রতিটি বোটে একটি ফার্স্ট এইড বক্স, একটি হুইল চেয়ার, একটি স্ট্রেচার, একটি ওয়াকিং ফ্রেম, দুইটি আলাদা টয়লেট, যার একটি সবার জন্য উন্মুক্ত এবং অন্য একটি সিনিয়র সিটিজেনরা ব্যবহার করবেন। প্রতিটি বোটে ৮০ জন যাত্রী ছাড়াও গৃহপালিত পশুপাখি ও অন্যান্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী বহন করা যাবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি এবি তাজুল ইসলাম ও সদস্য নিক্সন চৌধুরী এবং মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে মঙ্গলবার বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশে বর্তমান বন্যা পরিস্থিতি চলতি মৌসুমের মধ্যে সবচেয়ে খারাপ অবস্থায় রয়েছে। বিপৎসীমার উপরে রয়েছে ১৭টি নদীর পানি। নদীগুলোর ২৮টি পয়েন্টে বিপদসীমার উপর দিয়ে পানি প্রবাহিত হচ্ছে।

ফলে পানিতে ডুবে গেছে ফসল, ভেসে গেছে পুকুরের মাছ। ভেঙে গেছে বাঁধ। ডুবে গেছে বাড়িঘর, রাস্তাঘাট। গবাদিপশু, প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র, থাকা-খাওয়া নিয়ে বন্যা আক্রান্তরা চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here